Ultimate magazine theme for WordPress.

সম্পর্ক কখনোই মধুর ছিল না তাদের

0

 

 

নায়িকাদের রেষারেষি বলিউডে বিভিন্ন সময়ে আলোচনার শিরোনামে থেকেছে। সেই তালিকায় আছেন কাজল এবং রানি মুখোপাধ্যায়ও। এই দুই অভিনেত্রী সম্পর্কে কাজিন। কিন্তু একটা সময় অবধি তাদের সম্পর্ক মোটেও মধুর ছিল না। খবর আনন্দবাজারের।

তাদের বিবাদে যশরাজ ফিল্মসের বড় ভূমিকা আছে বলে শোনা যায়। যত দিন এই প্রযোজনা সংস্থার প্রধান ছিলেন যশ চোপড়া, ততদিন নায়িকা হিসেবে কাজল ছিলেন তাদের অন্যতম সেরা পছন্দ। ‘দিলওয়ালে দুলহনিয়া লে যায়েঙ্গে’, ‘ইয়ে দিল্লগি’, ‘ফনা’-সহ বহু ছবিতে নায়িকার ভূমিকায় ছিলেন কাজল। কিন্তু ছবিটা বদলে যায় যখন সংস্থার কার্যভার গ্রহণ করেন যশপুত্র আদিত্য চোপড়া।

আদিত্য চোপড়ার সঙ্গে রানির প্রেমের সম্পর্কের জন্য নাকি মাসুল দিতে হয়েছে কাজলকে। কারণ, রানির প্রভাবে নাকি কাজলের থেকে মুখ ফিরিয়ে নেয় যশরাজ ফিল্মস। এছাড়া  ইন্ডাস্ট্রিতে গুঞ্জন, কাজল নাকি চাননি ‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’ ছবিতে রানি সুযোগ পান। কিন্তু আদিত্য চোপড়ার কথায় রানিকে নিয়েছিলেন করণ জোহর।

সুপারহিট এই ছবিতে কাজল মূল নায়িকা হলেও রানির অভিনয়ও দর্শকদের মনে দাগ কেটেছিল। ইন্ডাস্ট্রিতে নায়িকা হিসেবে পরিচিতি পেয়েছিলেন তিনি। এই ছবির সুবাদে ধীরে ধীরে রানি জায়গা করে নেন বলিউডে।

কেরিয়ারের ভালো সময়েই বিয়ে করে অভিনয় প্রায় ছেড়ে দেন কাজল। সে সময় রানি নিজের জায়গা আরও মজবুত করে নেন বলিউডে। যশরাজ ফিল্মসে আদিত্যর প্রভাব বাড়তেই রানি তাদের ছবিতে নায়িকা হতে থাকেন।

চোপড়া পরিবার বিবাহিত আদিত্যর সঙ্গে রানির সম্পর্ক মেনে নিতে পারেনি। নায়িকা হিসেবে যশ চোপড়ার পছন্দ ছিলেন কাজলই। ফলে বাবা-ছেলের সম্পর্কও প্রায় ভেঙে গিয়েছিল।

কিন্তু শেষ অবধি আদিত্য চোপড়ার জেদের কাছে হার মানতে বাধ্য হয় পরিবার। ২০১৪ সালে বিয়ে হয় আদিত্য-রানির। এর র যশরাজ ফিল্মসের দরজা কার্যত বন্ধই হয়ে যায় কাজলের জন্য। এমনকি, ‘যব তক হ্যায় জান’ ছবির প্রিমিয়ার শো’তে ডাক পাননি তিনি। তিক্ততা এতটাই চরমে পৌঁছেছিল রানির বিয়েতেও দেখা যায়নি কাজলকে।

তবে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে তিক্ততার তীব্রতা হয়তো কিছুটা প্রশমিত হয়েছে। আগে প্রকাশ্যে দুই বোন একে অন্যের প্রসঙ্গে কোনো মন্তব্য করা থেকে বিরত থাকতেন। এখন দুজনে আড়ালেই রাখেন সবরকম তিক্ততা।

তবে ‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’-এর ২০ বছর উপলক্ষে গত বছর একটি টেলিভিশন শোতে হাজির ছিলেন কাজল-শাহরুখ-রানি। সেখানে কাজলকে ধন্যবাদ জানান রানি। তিনি বলেন, কেরিয়ারের শুরুতে কঠিন সময়ে তার পাশে ছিলেন দিদি কাজল।

তবে কাজল নিজস্ব ভঙ্গিতেই হাসতে হাসতে বলেন, তার মনেই পড়ছে না রানিকে কবে তিনি সাহায্য করেছেন! কারণ, তার কথায়, রানির কোনো সাহায্য প্রয়োজনই হয়নি। কেরিয়ারের প্রথম দিকের সিনেমা ‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’-এর প্রথম শটেই নাকি তারকাসুলভ শট দিয়ে বাজিমাত করেছিলেন রানি

Leave A Reply

Your email address will not be published.